সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১
এনআইডি না থাকায় বিপাকে কয়েক হাজার শিক্ষার্থী
হাজারিকা অণলাইন ডেস্ক
Published : Saturday, 19 June, 2021 at 4:12 PM

সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের করোনা ভ্যাকসিনের আওতায় আনতে তথ্য সংগ্রহ করছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এরই ধারাবাহিকতায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) শিক্ষার্থীদের করোনা ভ্যাকসিন দেয়ার জন্য নিবন্ধনের তথ্য সংগ্রহ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।
অনলাইনে শিক্ষার্থীরা ভ্যাকসিনের জন্য জাতীয় পরিচয়পত্রের নাম্বার এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের আইডি নাম্বার, ডিপার্টমেন্টের তথ্য দিয়ে প্রাথমিক নিবন্ধন করেছেন। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় অর্ধেক শিক্ষার্থীই এই নিবন্ধনের বাইরে রয়েছেন। জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) না থাকায় কয়েক হাজার শিক্ষার্থী তাদের তথ্য দিতে পারেনি। বিকল্প কোনো উপায়ও বলছে না বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এই পরিস্থিতিতে সব শিক্ষার্থীকে টিকাদান কর্মসূচির আওতায় এনে ক্যাম্পাস খোলার উদ্যোগটি সফল হতে দীর্ঘ সময় লেগে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের দাবি, এনআইডির বিকল্প হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচয়পত্র ও জন্ম নিবন্ধনের সনদপত্র দিয়ে সবাইকে ভ্যাকসিন নিবন্ধনের আওতায় আনা হোক।

দেশের অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের আগেই রেজিস্ট্রেশন করতে বলা হয়েছে। কিন্তু সেই হিসেবে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে বলা হয়েছে অনেক পরে। মে মাস থেকে টিকার গুঞ্জন শোনা গেলেও চলতি মাসের ৩ জুন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার দপ্তর থেকে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে শিক্ষার্থীদের তথ্য চাওয়া হয়। নির্ধারিত সময় ১০ জুন পর্যন্ত ১৭ হাজার ৩১৪ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে মাত্র ৯ হাজার ৪৫৪ জন শিক্ষার্থী নিবন্ধন করেছেন। এর প্রায় অর্ধেকাংশই এনআইডি না থাকায় বাদ পড়েছে। এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি দপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক ড. উজ্জ্বল কুমার আচার্য্য বলেন, ‘সর্বশেষ সময় পর্যন্ত নয় হাজার ৪৫৪ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেছে টিকার জন্য। শিক্ষার্থীদের তথ্যগুলো আমরা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে পাঠাব। মন্ত্রণালয় থেকেই সুরক্ষা অ্যাপের মাধ্যমে মেসেজে পরবর্তীতে শিক্ষার্থীদের কত তারিখ ও কোনো জায়গায় টিকা দেয়া হবে সেগুলো জানানো হবে।’

এ সময় যাদের এনআইডি নেই তাদের বিষয়ে বিকল্প কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এ বিষয়ে আমি জানি না। রেজিস্ট্রার স্যার ভালো বলতে পারবেন।’ বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো. ওহিদুজ্জামান বলেন, ‘আমরা শিক্ষার্থীদের ডেটা এখন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে পাঠাব। মন্ত্রণালয় থেকেই পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। তারপর সরকারেরও টিকা প্রাপ্তির একটি বিষয় আছে।’

যাদের জাতীয় পরিচয়পত্র নেই তাদের বিষয়ে কী ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমরা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে এ বিষয়ে আবার জানতে চাইব। এনআইডির বিকল্প হিসেবে মন্ত্রনালয় থেকে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত আসেনি। মন্ত্রণালয় থেকে আমরা যে নির্দেশনা পাব সেটি শিক্ষার্থীদের জানিয়ে দেব।’ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইমদাদুল হক বলেন, ‘জানতে পেরেছি যে জাতীয় পরিচয়পত্র না থাকায় অনেক শিক্ষার্থী টিকার নিবন্ধন করতে পারেনি। যেহেতু বড় একটা অংশ নিবন্ধন করতে পারেনি, তাদের বিষয়ে মন্ত্রণালয়ে জানাবো এবং যেভাবে করতে বলে আমরা সেভাবে করতে বলবো।’


সম্পাদক : জয়নাল হাজারী: মোবা: ০১৩১২৩৩৩০৮০।  প্রকাশক: মোঃ ইব্রাহিম পাটোয়ারী।
সহ সম্পাদক- রুবেল হাসান: ০১৮৩২৯৯২৪১২।  বার্তা সম্পাদক : জসীম উদ্দিন : ০১৭২৪১২৭৫১৬।  চীফ রিপোর্টার: ডিবি বৈদ্য: ০১৭৩৬-১৪৯২১০।  সার্কুলেশন ম্যানেজার : আরিফ হোসেন জয়, মোবাইল ঃ ০১৮৪০০৯৮৫২১।  রিপোর্টার: ইফাত হোসেন চৌধুরী: ০১৬৭৭১৫০২৮৭।  রিপোর্টার: নাসির উদ্দিন হাজারী পিটু: ০১৯৭৮৭৬৯৭৪৭।  মফস্বল সম্পাদক: রাসেল: মোবা:০১৭১১০৩২২৪৭   প্রকাশক কর্তৃক ফ্ল্যাট নং- এস-১, জেএমসি টাওয়ার, বাড়ি নং-১৮, রোড নং-১৩ (নতুন), সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত এবং সিটি প্রেস, ইত্তেফাক ভবন, ১/আর কে মিশন রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত।  বার্তা, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন বিভাগ: ০২-৪১০২০০৬৪।  ই-মেইল : [email protected], web : www.hazarikapratidin.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি