বুধবার, ২৫ মে, 2০২2
রোমাঞ্চ জাগিয়েও পারলো না সিলেট
হাজারিকা অনলাইন ডেস্ক
Published : Saturday, 22 January, 2022 at 5:24 PM

বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) ২০২২ এর দ্বিতীয় দিনের প্রথম ম্যাচে সিলেট সানরাইজার্সকে ২ উইকেটে হারালো কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। মিরপুরের লো স্কোরিং এই ম্যাচেও উত্তেজনা ছড়িয়েছে মুহুর্তে মুহুর্তে। শুরুতে টসে জিতে ফিল্ডিং বেছে নেই কুমিল্লার অধিনায়ক ইমরুল কায়েস। অধিনায়কের সিদ্ধান্তকে একটুখানিও ভূল প্রমাণ হতে দেননি দলের বোলাররা। কুমিল্লার বোলারদের অসাধারণ বোলিং নৈপুণ্যে সিলেট গুটিয়ে যায় মাত্র ৯৬ রানেই।

দলীয় ৭ রানর ওপেনার এনামুল হককে দিয়ে শুরু। এরপর থেকে সিলেটের ব্যাটাররা ছিলেন শুধু আসা যাওয়ার মিছিলেই। ব্যাটিং বিপর্যয়ের দিনে সিলেটের ব্যাটারদের মধ্য সর্বোচ্চ ইনিংস কলিন ইনগ্রামের ২০। দুই অংক ছুঁতে পেরেছেন মাত্র ৩ জন ব্যাটসম্যান।
কুমিল্লার নাহিদুল ইসলাম, মোস্তাফিজুর রহমান আর শহীদুল ইসলাম নিয়েছেন ২টি করে উইকেট। দারুণ বোলিংয়ে ৪ ওভারে মাত্র ১৫ রান দিয়েই ২ উইকেট তুলে নেয় মোস্তাফিজুর রহমান। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকা সিলেট শেষ পর্যন্ত ১৯.১ ওভারেই অলআউট ৯৬ রানে। কুমিল্লার সামনে ৯৭ রানের টার্গেটটা তখন বেশ মামুলিই লাগতেছিলো। তবে ম্যাচের নাটক তখনও বাকি।

দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিং করতে নেমে বিপর্যয়ের মুখে পড়েন কুমিল্লার ব্যাটাররাও। দলীয় ১৩ রানেই কুমিল্লা হারায় ওপেনার ফাফ ডু প্লেসিসকে। সোহাগ গাজীর বলে আউট হইয়ার আগে এই প্রোটিয়া এই হার্ড হিটার করতে পারেন ৭ বলে মাত্র ২ রান। এরপর থেকে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে ভিক্টোরিন্সের ব্যাটাররাও। ১০.২ ওভারে ৫৫ রান তুলতেই কুমিল্লা হারিয়ে ফেলে ৫ উইকেট। ম্যাচের পাল্লা তখন সিলেটের দিকে বরং।

সেখান থেকে দলের বিপর্যয় সামাল দেন নাহিদুল ইসলাম আর করিম জান্নাত। দুজন মিলে গড়েন ২৭ রানের জুটি। দলীয় ৮২ রানে গিয়ে তাদের জুটি ভাঙার পর আবারও হুড়মুড়িয়ে পড়তে থাকে কুমিল্লার ব্যাটসম্যানরা। ৮৮ রান করতেই কুলিল্লার উইকেট হয়ে যায় ৮ টি। তখন সিলেটের জয়ের জন্য দরকার ২ উইকেট আর কুমিল্লার প্রয়োজন ৯ রান।

শেষমেশ আর কোনো অঘটন ঘটতে দেননি মাহিদুল ইসলাম অংকন আর তানভির ইসলাম। ১৮.৪ ওভারে কুমিল্লার জয় নিশ্চিত করেই মাঠ ছাড়েন এই দুই লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যান। সিলেটের বোলাররা লো স্কোরিং এই ম্যাচেও যেভাবে লড়াই করেছে তা প্রশংসার দাবিদ্বার অবশ্যই। স্পিনার নাজমুল ইসলাম অপউ ৪ ওভারে মাত্র ১৭ রান দিয়েই তুলে নেন ৩ উইকেট। বোলিংয়ে ২ উইকেটের পাশাপাশি ব্যাটিংয়ে উইকেট বাঁচানো ১৬ রানের ফলের ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরষ্কার উঠেছে ভিক্টোরিয়ান্সের নাহিদুল ইসলামের হাতে।


প্রতিষ্ঠাতা বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল হাজারী।   ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: গোলাম কিবরীয়া হাজারী বিটু্।   প্রকাশক: মোঃ ইব্রাহিম পাটোয়ারী।
সহ সম্পাদক- রুবেল হাসান: ০১৮৩২৯৯২৪১২।  বার্তা সম্পাদক : জসীম উদ্দিন : ০১৭২৪১২৭৫১৬।  সার্কুলেশন ম্যানেজার : আরিফ হোসেন জয়, মোবাইল ঃ ০১৮৪০০৯৮৫২১।  রিপোর্টার: ইফাত হোসেন চৌধুরী: ০১৬৭৭১৫০২৮৭।  রিপোর্টার: নাসির উদ্দিন হাজারী পিটু: ০১৯৭৮৭৬৯৭৪৭।  মফস্বল সম্পাদক: রাসেল: মোবা:০১৭১১০৩২২৪৭   প্রকাশক কর্তৃক ফ্ল্যাট নং- এস-১, জেএমসি টাওয়ার, বাড়ি নং-১৮, রোড নং-১৩ (নতুন), সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত এবং সিটি প্রেস, ইত্তেফাক ভবন, ১/আর কে মিশন রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত।  বার্তা, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন বিভাগ: ০২-৪১০২০০৬৪।  ই-মেইল : [email protected], web : www.hazarikapratidin.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি