শনিবার, ২৪ আগস্ট, ২০১৯
পুলিশের কাছ থেকে ১৮ মামলার আসামি ছিনতাই
হাজারিকা অনলাইন ডেস্ক
Published : Thursday, 8 August, 2019 at 5:52 PM

 পুলিশের কাছ থেকে ১৮ মামলার আসামি ছিনতাইগাইবান্ধায় হাতকড়া লাগানো অবস্থায় হত্যাসহ ১৮টি মামলার আসামি ও জিনের বাদশা নামে একটি প্রতারক চক্রের মূল হোতা চিনু মিয়াকে পুলিশের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়েছে সহযোগীরা। এ সময় আত্মরক্ষার্থে ও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ শর্টগানের গুলি ছোড়ে। পরে অতিরিক্তি পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে নুর আলম ও তাজনুর রহমান নামে তার দুই সহযোগীকে আটক করে। এছাড়া ঘটনাস্থল থেকে ছিনতাইয়ে ব্যবহৃত দুটি মোটরসাইকেল জব্দ করে পুলিশ।

বুধবার রাত ১১টার দিকে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার দরবস্ত ইউনিয়নের বিশ্বনাথ গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। গোবিন্দগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্ত (ওসি) একেএম মেহেদী হাসান এই তথ্য বলে নিশ্চিত করেছেন। আসামি চিনু মিয়া (৩৭) গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার দরবস্ত ইউনিয়নের বিশ্বনাথ গ্রামের মৃত নুরু ইসলামের ছেলে। গোবিন্দগঞ্জ থানার ওসি একেএম মেহেদী হাসান জানান, আসামি চিনু জিনের বাদশা প্রতারক চক্রের একজন মূল হোতা। তার বিরুদ্ধে অস্ত্র আইন, হত্যা চেষ্টা, প্রতারণা, চাঁদাবাজি, অগ্নিসংযোগ ও নাশকতাসহ ১৮টি মামলা আদালতে বিচারাধীন আছে। আদালত তার বিরুদ্ধে একাধিক গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন।

তিনি বলেন, গোপন খবরের ভিত্তিতে পুলিশের একটি দল অভিযান চালিয়ে চিনুকে নিজ এলাকা থেকে গ্রেফতার করে। এরপর হাতকড়া পড়িয়ে গাড়িতে করে গোবিন্দগঞ্জ থানায় নেয়ার সময় সহযোগীরা লাঠি সোটা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘবদ্ধ হয়ে তাকে ছিনিয়ে নেয়। আত্মরক্ষার্থে ও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে তখন পুলিশও পাল্টা গুলি করে। এরপর ঘটনাস্থল থেকে নুর আলম ও তাজনুর নামে চিনুর দুই সহযোগীকে আটক করা হয়।


সম্পাদক : জয়নাল হাজারী।  ফোন : ০২-৯১২২৬৪৯
মোঃ ইব্রাহিম পাটোয়ারী কর্তৃক ফ্যাট নং- এস-১, জেএমসি টাওয়ার, বাড়ি নং-১৮, রোড নং-১৩ (নতুন), সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
এবং সিটি প্রেস, ইত্তেফাক ভবন, ১/আর কে মিশন রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত।
আবু রায়হান (বার্তা সম্পাদক) মোবাইল : ০১৯৬০৪৯৫৯৭০ মোবাইল : ০১৯২৮-১৯১২৯১। মো: জসিম উদ্দিন (চীফ রিপোর্টার) মোবাইল : ০১৭২৪১২৭৫১৬।
বার্তা বিভাগ: ৯১২২৪৬৯, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ০১৯৭৬৭০৯৯৭০ ই-মেইল : [email protected], Web : www.hazarikapratidin.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি