শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৯
এবার যুদ্ধবাজ বোল্টনকে বরখাস্ত করলেন ট্রাম্প
Published : Wednesday, 11 September, 2019 at 10:50 AM


এবার যুদ্ধবাজ বোল্টনকে বরখাস্ত করলেন ট্রাম্পআন্তর্জাতিক ডেস্ক ॥
মধ্যপ্রাচ্যে ইরান ও উত্তর কোরিয়াকে সামলানোর জন্য দায়িত্ব পাওয়া মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টনকে তার পদ থেকে বহিষ্কার করেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেছেন, বোল্টনের সঙ্গে এ পর্যন্ত অনেক ব্যাপারে তিনি দ্বিমত পোষণ করে এসেছেন। বার্তা সংস্থা রয়টার্স ও এএফপির খবরে বলা হয়, সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টুইটারে দেয়া পোস্টে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, "গতরাতে আমি জন বোল্টনকে জানিয়েছি যে, হোয়াইট হাউজে তার সেবার আর প্রয়োজন নেই। আমি তার অনেক পরামর্শের সঙ্গে জোরালোভাবে দ্বিমত পোষণ করেছি এবং আমার প্রশাসনের ব্যাপারেও তার সঙ্গে আমি অনেক ব্যাপারে দ্বিমত পোষণ করেছি। আমি তাকে পদত্যাগ করার আহবান জানিয়েছি এবং তিনি আজ সকালে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন।"

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প টুইটার পোস্ট আরো লিখেছেন, "তার সেবার জন্য আমি জন বোল্টনকে অনেক ধন্যবাদ জানাই। আগামী সপ্তাহে আমি নতুন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার নাম ঘোষণা করবো।" মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও এবং অর্থমন্ত্রী স্টিভেন নুচিনের সঙ্গে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত হওয়ার দেড় ঘণ্টা আগে জনকে বরখাস্ত করা হলো। এ সম্পর্কে তিনি অবশ্য ভিন্ন কথা বলেছেন। জন বোল্টন বলেছেন, “আমি গতরাতে পদত্যাগের প্রস্তাব দিয়েছি এবং প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছেন আমরা এ বিষয়ে আগামী কাল কথা বলবো।”

এর আগে ট্রাম্প বিভিন্ন সময়ে জন বোল্টনকে যুদ্ধবাজ ব্যক্তি হিসেবে কৌতুক করেছেন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প একবার হোয়াইট হাউসে বলেছিলেন, “এমন কোনো যুদ্ধ নেই যা জন বোল্টন পছন্দ করেন না। আফগানিস্তানের তালেবান প্রতিনিধিদের যুক্তরাষ্ট্রে আমন্ত্রণের পরিকল্পনা নিয়ে ট্রাম্প প্রশাসনে বিভাজনের খবরের মধ্যে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টাকে অপসারণ করা হল।

উত্তর কোরিয়া ও আফগানিস্তান বিষয়ে জন বোল্টন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে মতবিরোধে জড়িয়েছিলেন বলে জানা গেছে। গত বছর ইরান পরমাণু চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ট্রাম্পের অবস্থান সমর্থন করে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার পদে এসেছিলেন জন বোল্টন।

মতবিরোধ এমন পর্যায়ে পৌঁছায় যে, বোল্টন নেতৃত্বাধীন জাতীয় নিরাপত্তা পর্ষদের সদস্যদের সঙ্গে ট্রাম্প প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তাদের সম্পর্ক অনেকটা শত্রু তায় রূপ নেয় বলে হোয়াইট হাউজ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

বৈশ্বিক সংঘাতের প্রতি টানের কারণে মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টনের ব্যাপক সমালোচনা রয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রকে ইরানের সঙ্গে সহিংস সংঘাতে জড়াতে অনবরত চেষ্টা করে গেছেন জন বোল্টন। তার সেই চেষ্টার অংশ হিসেবে ২০১৫ সালে মার্কিন দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্টে একটি কলামও লিখেছিলেন তিনি। ইরানের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের চলমান উত্তেজনায় জন বল্টন ব্যাপক উৎসাহী ভূমিকা পালন করেছেন।

২০১৮ সালের এপ্রিল থেকে দায়িত্ব পালন করে আসা জন বোল্টন ছিলেন ট্রাম্পের তৃতীয় জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা। তার আগে এই পদ থেকে বিদায় নিতে হয়েছে মাইকেল ফ্লিন ও ম্যাকমাস্টারকে।


সম্পাদক : জয়নাল হাজারী।  ফোন : ০২-৯১২২৬৪৯
মোঃ ইব্রাহিম পাটোয়ারী কর্তৃক ফ্যাট নং- এস-১, জেএমসি টাওয়ার, বাড়ি নং-১৮, রোড নং-১৩ (নতুন), সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
এবং সিটি প্রেস, ইত্তেফাক ভবন, ১/আর কে মিশন রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত।
আবু রায়হান (বার্তা সম্পাদক) মোবাইল : ০১৯৬০৪৯৫৯৭০ মোবাইল : ০১৯২৮-১৯১২৯১। মো: জসিম উদ্দিন (চীফ রিপোর্টার) মোবাইল : ০১৭২৪১২৭৫১৬।
বার্তা বিভাগ: ৯১২২৪৬৯, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ০১৯৭৬৭০৯৯৭০ ই-মেইল : [email protected], Web : www.hazarikapratidin.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি