শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
উখিয়া-টেকনাফে যত্রতত্র এনজিও, দখল করেছে খেলার মাঠ-বনের জমি
হাজারিকা অণলাইন ডেস্ক
Published : Thursday, 12 September, 2019 at 4:26 PM


উখিয়া-টেকনাফে যত্রতত্র এনজিও, দখল করেছে খেলার মাঠ-বনের জমি উখিয়া-টেকনাফে যত্রতত্রভাবে গড়ে উঠেছে এনজিও অফিস। রোহিঙ্গাদের সেবার নামে কাজ করতে এসে মানছেনা কোন নিয়ম নীতি। দখল করে রেখেছে খেলার মাঠ ও বনবিভাগের জমি। সড়ক ঘেষে যানবাহন রাখার কারনে বাড়ছে যানজট ও সড়ক দুর্ঘটনা। সবমিলিয়ে স্থানীয়দের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে।  মিয়ানমারে থেকে পালিয়ে আসা ১১ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গাদের সেবা দিতে এসে বেশ কিছু এনজিও-আইএনজিও ফুটপাট দখল করে গড়ে তুলেছে কার্যালয়। এসব কার্যালয়ের পাশে রাখা হাজারো যান বাহনের ফলে সড়কে দূর্ঘটনার পাশাপাশি পথচারী ও স্থানীয় জনগোষ্ঠিকে পোহাতে হচ্ছে চরম দুর্ভোগ।

শুধু ফুটপাট নয়, দখল করে রেখেছে উখিয়া ও টেকনাফে বেশ কিছু খেলার মাঠ। দীর্ঘ দুই বছরের বেশি সময় ধরে টেকনাফের শামলাপুরের একমাত্র খেলার মাঠটি দখল হয়ে আছে।  সরকারের নির্দেশনা উপেক্ষা করে কতিপয় সংশ্লিষ্ট ক্যাম্প ইনচার্জের যোগসাজসে গড়ে তুলেছে অবৈধ স্থাপনা। করা হয় নতুন নতুন রাস্তাঘাট। এনজিও ব্র্যাক ও আদ্রা রাস্তা ও স্থাপনা তৈরী করায় বন বিভাগ এই এনজিওর নামে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করে। তবে ইতিমধ্যে অনিয়মে জড়িত থাকায় আদ্রাকে প্রত্যাহার করে নিয়েছে এনজিও ব্যুরো। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রবিউল হাসান জানালেন, দোষীদের বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে। দ্রুত ফুটপাট ও অবৈধভাবে গড়ে উঠা স্থাপনা সরিয়ে পথচারি ও স্থানীয়দের দুর্ভোগ লাঘব করবে প্রশাসন এমন দাবি এলাকাবাসী।


সম্পাদক : জয়নাল হাজারী।  ফোন : ০২-৯১২২৬৪৯
মোঃ ইব্রাহিম পাটোয়ারী কর্তৃক ফ্যাট নং- এস-১, জেএমসি টাওয়ার, বাড়ি নং-১৮, রোড নং-১৩ (নতুন), সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
এবং সিটি প্রেস, ইত্তেফাক ভবন, ১/আর কে মিশন রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত।
আবু রায়হান (বার্তা সম্পাদক) মোবাইল : ০১৯৬০৪৯৫৯৭০ মোবাইল : ০১৯২৮-১৯১২৯১। মো: জসিম উদ্দিন (চীফ রিপোর্টার) মোবাইল : ০১৭২৪১২৭৫১৬।
বার্তা বিভাগ: ৯১২২৪৬৯, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ০১৯৭৬৭০৯৯৭০ ই-মেইল : [email protected], Web : www.hazarikapratidin.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি