শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৯
ভাঙা কাঁচ খেয়ে ৪০ বছর পার!
Published : Friday, 20 September, 2019 at 6:03 PM

  ভাঙা কাঁচ খেয়ে ৪০ বছর পার!আন্তর্জাতিক ডেস্ক ॥
মজা করার জন্য অনেকেই অনেক ধরনের কাজ করে থাকেন। তাই বলে দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে কাঁচ খাওয়ার কথা বোধহয় ভাবতে পারেন না কেউ। ভারতের মধ্যপ্রদেশে এরকম একটি ঘটনা ঘটেছে। এক আইনজীবী ৪০ বছর ধরে ভাঙা কাঁচের টুকরো খাচ্ছেন। মধ্যপ্রদেশের দিনদোরি জেলার বাসিন্দা ওই আইনজীবীর নাম দয়ারাম সাহু। এমন অভ্যাস খারাপ বলে মানলেও তিনি জানালেন গত চার দশকের বেশি সময় ধরে এটাই তার একমাত্র নেশা। এমন নেশার কারণে তার দাঁতের পাশাপাশি শরীরের ওপরেও প্রভাব পড়ছে। ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআই-কে দেয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি জানিয়েছেন, গত ৪০ বছর ধরে এটাই তার নেশা। কাঁচ খাওয়ার জন্য তার দাঁতের খুব ক্ষতি হচ্ছে। আগে অনেক বেশি কাচ খেলেও এখন কমিয়ে দিয়েছেন। নেশার জন্য তিনি নিজে কাচ খেলেও বাকিদের অবশ্য তা করতে বারণ করেছেন ৷

নিছক মজার ছলেই ও আগ্রহবশত তার এই নেশার শুরু। তবে প্রথমবার কাঁচ খাওয়ার পর তার নাকি বেশ ভালই লেগেছিল। কিন্তু এরপর ধীরে ধীরে এটা তার নেশাতে পরিণত হয়ে যায়। তবে নিজে খেলেও বাকিদের কাঁচ খেতে তিনি বারণ করেছেন শাহাপুরের সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. সাতেন্দ্র পারাস্তে জানিয়েছেন, কাঁচ খাওয়ার মতো এমন বাজে বিষয়ের মাধ্যমে নেশা করার চেষ্টা করাও উচিত নয়। কেননা এর ফলে শরীরের ভেতরে অনেক ধরনের সমস্যা দেখা দিতে পারে। যেহেতু কাঁচ হজম করা যায় না তাই শরীরের ভেতরে গেলে এটা বড় ক্ষতির কারণ হতে পারে। শরীরের ভেতরের যেকোনো অঙ্গ ক্ষতিগ্রস্ত হতেও পারে। এটির কারণে শরীরে ঘা হয়ে যেতে পারে। তাই এমন বস্তু খাওয়ার চেষ্টা না করতে সবাইকে পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।


সম্পাদক : জয়নাল হাজারী।  ফোন : ০২-৯১২২৬৪৯
মোঃ ইব্রাহিম পাটোয়ারী কর্তৃক ফ্যাট নং- এস-১, জেএমসি টাওয়ার, বাড়ি নং-১৮, রোড নং-১৩ (নতুন), সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
এবং সিটি প্রেস, ইত্তেফাক ভবন, ১/আর কে মিশন রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত।
আবু রায়হান (বার্তা সম্পাদক) মোবাইল : ০১৯৬০৪৯৫৯৭০ মোবাইল : ০১৯২৮-১৯১২৯১। মো: জসিম উদ্দিন (চীফ রিপোর্টার) মোবাইল : ০১৭২৪১২৭৫১৬।
বার্তা বিভাগ: ৯১২২৪৬৯, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ০১৯৭৬৭০৯৯৭০ ই-মেইল : [email protected], Web : www.hazarikapratidin.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি