রবিবার, ১৭ নভেম্বর, ২০১৯
নদী দখলের তথ্য দিলেই মিলবে পুরস্কার
Published : Friday, 18 October, 2019 at 8:44 PM

নদী দখলের তথ্য দিলেই মিলবে পুরস্কারস্টাফ রিপোর্টার॥ অবৈধভাবে নদী দখল ঠেকাতে কঠোর অবস্থানে সরকার। এরইমধ্যে দখলের হাত থেকে নদী বাঁচাতে নানা পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। অভিযান চালিয়ে ঢাকার চারপাশের নদীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে নদী দখলমুক্ত করা হচ্ছে। এবার নৌ মন্ত্রণনালয় সিদ্ধান্ত নিয়েছে নদী দখলকারীদের তথ্যদাতা বা সংবাদদাতাকে পুরস্কৃত করা হবে। নদী বেদখল হওয়ার হাত থেকে রক্ষায় জনগণকে সম্পৃক্ত করতেই এমন পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে নৌ-পরিবহণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটিকে জানানো হয়েছে এ বিষয়ে কাজ চলছে।
বৃহস্পতিবার সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ১১তম বৈঠকে এ তথ্য জানানো হয়। নদী থেকে পলিথিন সরানোর জন্য ছয়টি রিভার ক্লিনিং ভেসেল কেনা হচ্ছে বলেও এসময় জানানো হয়।
বৈঠকের কার্যপত্র থেকে জানা যায়, নদীগুলো যাতে আর বেদখল না হয় সেজন্য জনগণকে সম্পৃক্ত করার লক্ষ্যে সংবাদদাতাকে পুরস্কৃত করার জন্য কমিটির তৃতীয় বৈঠকে সুপারিশ করা হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে মন্ত্রণালয় জানায়, নদী দখলকারীদের তথ্যদাতা বা সংবাদদাতাকে পুরস্কার প্রদানের বিষয়টি বাস্তবায়নের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে কমিটির সভাপতি মেজর (অব.) রফিকুল ইসলাম জানান, দখলদারদের কারণে বাংলাদেশের নদীগুলো হুমকির মুখে। এ বিষয়ে সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ নিলেও তেমন সুফল পাওয়া যাচ্ছে না। নদী দখলের খবরদাতাকে পুরস্কার দেয়ার সুপারিশ করা হয়েছিল। মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে কাজ করছে বলে জানিয়েছে। কমিটি বিষয়টি দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য সুপারিশ করেছে।
কার্যপত্র থেকে আরও জানা যায়, নদী খননের জন্য এর তলদেশে থাকা পলিথিন ও আবর্জনা প্রথমে সরানোর জন্য স্ক্রলিং ক্লিনার আনার সুপারিশ করে কমিটি।
এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের অগ্রগতি বিষয়ক প্রতিবেদনে জানানো হয়, বিআইডব্লিউটিএর জন্য আনুষঙ্গিক সুবিধাদি উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন দুটি উদ্ধারকারী জলযান, ছয়টি রিভার ক্লিনিং ভেসেলসহ বিভিন্ন ধরনের ৬১টি সার্ভিস জাহাজ এবং বিভিন্ন ধরনের ১৩২টি পন্টুন সংগ্রহের লক্ষ্যে সমীক্ষা প্রস্তাব প্রকল্পের আওতায় ছয়টি রিভার ক্লিনিক ভেসেলসহ অন্যান্য নৌযান সংগ্রহের লক্ষ্যে পরামর্শক প্রতিষ্ঠান বুয়েট কর্তৃক সম্ভাব্যতা সমীক্ষা কার্যক্রম চলমান।
এদিকে সংসদ সচিবালয়ের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বৈঠকে চাঁদপুর জেলার শাহরাস্তি ও হাজীগঞ্জ উপজেলায় গৃহীত নদী ড্রেজিং/খননসহ নদীর তীর রক্ষার্থে ওয়াকওয়ে নির্মাণের সুপারিশ করা হয়। এ ছাড়া উপকূলীয় এলাকায় রাতে যাতায়াতের জন্য চট্টগ্রাম জেলার সন্দ্বীপ চ্যানেলে বয়াবাতি স্থাপনের কাজ দ্রুত সম্পন্ন করার সুপারিশ করা হয়।
কমিটির সভাপতি মেজর (অব.) রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য শাজাহান খান, মো. মজাহারুল হক প্রধান, রণজিৎ কুমার রায়, মাহফুজুর রহমান, ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল, মো. আছলাম হোসেন সওদাগর এবং এস এম শাহজাদা বৈঠকে অংশ নেন।




সম্পাদক : জয়নাল হাজারী।  ফোন : ০২-৯১২২৬৪৯
মোঃ ইব্রাহিম পাটোয়ারী কর্তৃক ফ্যাট নং- এস-১, জেএমসি টাওয়ার, বাড়ি নং-১৮, রোড নং-১৩ (নতুন), সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
এবং সিটি প্রেস, ইত্তেফাক ভবন, ১/আর কে মিশন রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত।
আবু রায়হান (বার্তা সম্পাদক) মোবাইল : ০১৯৬০৪৯৫৯৭০ মোবাইল : ০১৯২৮-১৯১২৯১। মো: জসিম উদ্দিন (চীফ রিপোর্টার) মোবাইল : ০১৭২৪১২৭৫১৬।
বার্তা বিভাগ: ৯১২২৪৬৯, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ০১৯৭৬৭০৯৯৭০ ই-মেইল : [email protected], Web : www.hazarikapratidin.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি