বৃহস্পতিবার, ০৬ আগস্ট, ২০২০
ফেনীতে স্বামীকে তালাক দেয়ার পর অন্তঃসত্ত্বা নারীর প্রেমিকের সঙ্গে বিয়ে
Published : Wednesday, 4 December, 2019 at 6:59 PM

ফেনী প্রতিনিধি ॥
ফেনীতে স্বামীকে তালাক দেয়ার পর প্রেমিককে বিয়ে করেছেন বিবি খাদিজা নামের এক নারী। সামাজিক সিদ্ধান্তে সোমবার বিকালে ফেনীর আদালত পাড়ায় তিন লাখ টাকা দেনমোহরে প্রেমিক শাহাদাত হোসেনের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। এসময় আইনজীবী, সমাজের পঞ্চায়েত ও উভয় পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। এর আগে স্বামীর সঙ্গে তালাকের পর গত শুক্রবার স্থানীয় ইউপি সদস্য শাহজাহান কবির সাজুর সভাপতিত্বে শালিশ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। ওই বৈঠকে উভয় পরিবারের বক্তব্য শুনে প্রাক্তন প্রেমিকের সঙ্গে খাদিজার নতুন করে বিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। এলাকাবাসী জানায়, খাদিজার সঙ্গে তিন বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক ছিল উপজেলার চরমজলিশপুর ইউনিয়নের মজলিশপুর গ্রামের মিয়াজিপাড়া এলাকার নুরুল হকের ছেলে শাহাদতের। পরে খাদিজার পরিবার তাদের সম্পর্ক মেনে না নিয়ে অন্যত্র মেয়ের বিয়ের দেন। বিয়ের পর খাদিজা আগে থেকেই অন্তঃসত্ত্বা জানতে পেরে স্বামীর সঙ্গে কলহের সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে তাদের ডিভোর্স হয়। পরে খাদিজা তার অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার জন্য শাহাদাতের সঙ্গে তার সম্পর্ক ও ইতিপূর্বে তাদের বিয়ে হয়েছিল বলে জানায়। শাহাদাত বলেন, গত তিন বছর ধরে আমাদের প্রেমের সম্পর্ক চলাকালে উভয়ের সম্মতিতে এলাকার মৌলভির মাধ্যমে আমরা গোপনে বিয়ে করি। পরে খাদিজার পরিবারকে বিষয়টি জানানো হলেও তারা সেটা আমলে না নিয়ে তাকে অন্যত্র বিয়ে দেয়। তার স্বামী বিষয়টি জানলে তাদের তালাক হওয়ার পর সামাজিক সিদ্ধান্তে আমি তাকে ফের বিয়ে করেছি। স্থানীয় ইউপি সদস্য শাহজাহান কবির সাজু বলেন, উভয় পরিবারের সম্মতিতে সামাজিক সিদ্ধান্তে নতুন করে খাদিজার সঙ্গে শাহাদতের বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।


সম্পাদক : জয়নাল হাজারী।  ফোন : ০২-৯১২২৬৪৯
মোঃ ইব্রাহিম পাটোয়ারী কর্তৃক ফ্যাট নং- এস-১, জেএমসি টাওয়ার, বাড়ি নং-১৮, রোড নং-১৩ (নতুন), সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
এবং সিটি প্রেস, ইত্তেফাক ভবন, ১/আর কে মিশন রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত।
আবু রায়হান (বার্তা সম্পাদক) মোবাইল : ০১৯৬০৪৯৫৯৭০ মোবাইল : ০১৯২৮-১৯১২৯১। মো: জসিম উদ্দিন (চীফ রিপোর্টার) মোবাইল : ০১৭২৪১২৭৫১৬।
বার্তা বিভাগ: ৯১২২৪৬৯, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ০১৯৭৬৭০৯৯৭০ ই-মেইল : [email protected], Web : www.hazarikapratidin.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি