বৃহস্পতিবার, ০৬ আগস্ট, ২০২০
সম্রাট শাহ’জাহানও পাপুলের কাছে হার মেনে গেছে স্ত্রীকে ভালোবাসার ক্ষেত্রে
হাজারিকা অনলাইন ডেস্ক
Published : Tuesday, 14 July, 2020 at 10:46 AM

বাংলাদেশে এখন শুধু দুটি নামই বেশি উচ্চারিত হচ্ছে। আর এই নাম দুটো হলো সদ্য আ’লোচিত রিজেন্ট হাসপাতা’লের পরিচালক সাহেদ এবং আরেক জন যিনি বেশ কিছু দিন ধরেই আ’লোচিত তিনি হলেন সাংসদ পাপুল।
বাংলাদেশে এখন চলছে তাদের দুর্নিতীর জয়জয়কার। অনেকেই অনেক ভাবে তাদের ধীক্কার দিচ্ছেন। দিন যত পার হচ্ছে তাদের নামের পাশে ততই যোগ হচ্ছে নানা ধরনের নতুন নতুন সব অ’পকর্ম। এবার তাদের নিয়ে একটি কল্পনার লেখা লিখলেন শামীমুল হক।
পাঠকদের উদ্দেশ্যে তার সেই মজার লেখনিটি তুলে ধ’রা হলো হুবহু:-

সত্যিই এমন সাহসী বীর কমই আছে। তাদের এ দুই বীরের সাহসীকতার জন্য পুরস্কারের ব্যবস্থা করা যেতে পারে। পুরস্কারের কি নাম হবে তার জন্য গঠন করা যেতে পারে একটি উচ্চ পর্যায়ের কমিটি। তারপর দিনক্ষণ ঠিক করে দেশ বিদেশের অ’তিথি এনে তাদের জন্য আয়োজন করা যেতে পারে গণসংবর্ধনার। যেখানে রাতব্যাপী হবে গান বাজনা। ওয়াকা ওয়াকা খ্যাত কলম্বিয়ার শিল্পী শাকিরা সেখানে গাইবেন। নাচবেন। দেশের ১৬ কোটি মানুষের ৩২ কোটি চোখ থাকবে অনুষ্ঠানস্থলে। এজন্য বঙ্গোপসাগরের উপরে করা হবে সাজসজ্জা। যেখানে কোটি মানুষের স্থান সংকুলানের ব্যবস্থা থাকবে। অন্যরা ঘরে বসে দেখবেন দুই সাহসী বীরের কী’র্তিগাথা। স্ক্রীনে দেখানো হবে তাদের কী’র্তি। কিভাবে হবে এ অনষ্ঠান কল্পনায় দেখা যাক।

প্রথমেই স্ক্রীনে ভেসে উঠবে হাস্যজ্জল বাংলাদেশের মাননীয় সংসদ সদস্য শহিদ ইস’লাম পাপুলের মুখ। একে একে উনার কী’র্তিগাথা ভেসে উঠবে। ব্যাকগ্রাউন্ডে নেপথ্যে কণ্ঠে ভেসে আসছে শব্দমালা। ইনিই শহিদ ইস’লাম পাপুল। জীবনে কোনদিন রাজনীতি না করেও এখন এমপি। তিনি আবার কুয়েতেরও নাগরিক। সংবিধানে দ্বৈত নাগরিকের এমপি হতে বাধাও তার ক্ষেত্রে বাধা হতে পারেনি। উনার আরেক কী’র্তি নিজে এমপি হয়েও সুখী হতে পারেননি। স্ত্রী’কেও এমপি বানালেন। কারণ তিনি তার স্ত্রী’কে ভালোবাসেন জীবনের চেয়েও বেশি। সংসদে থাকাকালে ভালোবাসার মানুষটিকে না দেখে থাকবেন কি করে? তাই স্ত্রী’কেও সংরক্ষিত আসনে এমপি বানিয়ে আনলেন। তার এ ভালোবাসার কাছে হার মেনেছে সম্রাট শাহ’জাহানও। কারণ শাহ’জাহান যার জন্য তাজমহল বানিয়েছেন তার স্ত্রী’ মমতাজ তা দেখে যেতে পারেননি।

তাজমহল বানানো হয়েছে তার মৃ’ত্যুর পর। এরপরের কী’র্তি হলো- দেশের অগণিত মানুষের র’ক্ত চুষে কামিয়েছেন হাজার কোটি টাকা। অসহায় এসব বাংলাদশির কা’ন্না দেখে পাপুল হেসেছেন অট্রহাসি। হাজারো মানুষকে পথে বসিয়ে তুলেছেন তৃপ্তির ঢেকুর। পাপুলের আরক সাহসীর চিত্র হলো- ছয় মাস আগে কুয়েতের পত্রিকায় বিষয়টি নিয়ে রিপোর্ট হয়। সে সময় কৌশল করে কুয়েত থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে আসেন। এখানে এসেও দেখেন কুয়েতের পত্রিকার বরাতে বাংলাদেশের মিডিয়া প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। এবার পাপুলের দৌঁড়ঝাপ শুরু হয়। এ এমপি তিনি নন বলে দাবি করেন।

তার স্ত্রী’ সংসদের প্যাডে বিবৃতি দেন স্বামীর পক্ষে। বলেন, এসব মি’থ্যে। তিনিও দাবি করেন কুয়েতের পত্রিকায় পাপুলের কথা বলা হয়নি। তাছাড়া পাপুল এমন কাজে জ’ড়িত নয়। পাপুল বিদেশে লোক পাঠান না। তার সাহসের আরেক কী’র্তি হলো- এতকিছুর পরও তিনি ফের কুয়েত যান। এবার গ্রে’প্তার হন কুয়েতের সিআইডির হাতে। অ’ভিযোগ মানবপাচার ও মানিলন্ডারিং। গ্রে’প্তার হলেও এবারও তার স্ত্রী’ দাবি করেন তিনি গ্রে’প্তার হননি। নেয়া হয় রি’মান্ডে। এবার থলের বিড়াল বেরিয়ে আসে। কুয়েতের উর্ধতন অনেকের নাম জড়িয়ে পড়ে। সে দেশের সরকার ইতোমধ্যে কয়েক জনকে গ্রে’প্তার করেছে। বিচার চলছে।

নেপথ্যে কণ্ঠে এবার ভেসে এলো, আম’রা তার এসব সাহসীকতার জন্য গণসংবর্ধণার আয়োজন করেছি। ১৬ কোটি মানুষের হৃদয়ে দোলা দিতে পেরেছেন বলেই আজকের এই আয়োজন। এর পরই স্ক্রীনে ভেসে উঠে রিজেন্ট হাসপাতা’লের মালিক শাহেদের ছবি। নেপথ্যে বর্ণনা- ইনি সেই সাহসী বীর শাহেদ। যিনি ট’কশোতে মুখে ফেনা তুলতেন সরকারের পক্ষে। তার সাহসের কী’র্তি বলতে গেলে অনেক। সাতক্ষীরা থেকে এসে অল্প কয়েক বছরে কোটি কোটি টাকার মালিক হয়েছেন। গড়েছেন অনেক প্রতিষ্ঠান। করো’নাকালের কী’র্তির কথা শুনলে আপনারা হাত তালি দেবেন। মিস্টার শাহেদের রিজেন্ট হাসপাতালটি করো’না টেস্টের স্যাম্পল সংগ্রহ করতো। কিন্তু কোনও টেস্ট করতো না। মনগড়া রিপোর্ট দিতো।

হাসপাতা’লের আইসিইউ অ’ত্যন্ত নিম্নমানের। হাসপাতা’লের ল্যাবের ফ্রীজে মাছ রাখা হতো। হাসপাতালটির লাইসেন্সের মেয়াদ শেষ হয়েছে ২০১৪ সালে। আরও রয়েছে তার কী’র্তির কথা। তার বি’রুদ্ধে রয়েছে ৩২ টি মা’মলা। প্রতারণা মা’মলায় জে’ল খাটা একজন দাগী অ’প’রাধী।
গোটা বিশ্ব তথা দেশ যখন করো’নার থাবায় বিপর্যস্থ তখন মানুষের জীবন নিয়ে উনার কী’র্তি মনে রাখার মত। শাহেদ সুস্থ মস্তিস্কে, সুষ্ঠু জ্ঞানে এমন কী’র্তি করেছেন। তাই আম’রা এই সাহসী বীরকে সংবর্ধনা দিচ্ছি।

বঙ্গোপসাগরের উত্তাল ঢেউ আজকের আয়োজনকে এনে দিয়েছে অন্যরকম আবহ। পরস্কার তুলে দেয়ার আগে আপনাদের জন্য বিশেষ আয়োজন বিশ্বখ্যাত গায়িকা শাকিরার গান। এবার মঞ্চে এলেন শাকিরা। গান ধরলেন- ও পাপুল ও পাপুল/ ও শাহেদ ও শাহেদ/ তোমাদের কী’র্তি যেন রয় বহমান। চারদিকে কোটি মানুষের হাত তালি আর ওয়াও ওয়াও চি’ৎকার!!!

এ দিকে এখন সব থেকে বেশি আলোচনা সমালোচনা হচ্ছে রিজেন্ট হাসপতা’লের পরিচালক সাহেদকে নিয়ে। যিনি রাজনিতী না করেও ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগের সাথে গড়ে তুলেছিলেন সখ্যতা। তার হাত ছিল দলটির সর্বোচ্চ পর্যন্ত। আর এ সব নিয়েই এখন সব থেকে বেশি সমালোচনা হচ্ছে। এ ছাড়াও এত অ’ভিযোগ থাকা সত্ত্বেও তাকে এখনো পর্যন্ত করা হয়নি গ্রে’ফ’তা’র যার কারনে সমালোচনা আরো বেশি তুঙ্গে।


সম্পাদক : জয়নাল হাজারী।  ফোন : ০২-৯১২২৬৪৯
মোঃ ইব্রাহিম পাটোয়ারী কর্তৃক ফ্যাট নং- এস-১, জেএমসি টাওয়ার, বাড়ি নং-১৮, রোড নং-১৩ (নতুন), সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
এবং সিটি প্রেস, ইত্তেফাক ভবন, ১/আর কে মিশন রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত।
আবু রায়হান (বার্তা সম্পাদক) মোবাইল : ০১৯৬০৪৯৫৯৭০ মোবাইল : ০১৯২৮-১৯১২৯১। মো: জসিম উদ্দিন (চীফ রিপোর্টার) মোবাইল : ০১৭২৪১২৭৫১৬।
বার্তা বিভাগ: ৯১২২৪৬৯, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ০১৯৭৬৭০৯৯৭০ ই-মেইল : [email protected], Web : www.hazarikapratidin.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি