শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর, ২০২০
অর্থনীতির গতি ফেরাতে চীনে একগুচ্ছ নতুন পদক্ষেপ
Published : Friday, 20 November, 2020 at 8:42 PM

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
করোনাভাইরাস মহামারির আঘাতে চরম সংকটে বিশ্ব অর্থনীতি। পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ চীনেও এর প্রভাব পড়েছে জোরেশোরেই। তবে সেই ধাক্কা সামলাতে বেশ দক্ষতার পরিচয় দিচ্ছে চীনারা। ইতোমধ্যেই সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে এনেছে তারা। এবার অর্থনীতিতে গতি ফেরাতে একগুচ্ছ নতুন পদক্ষেপের ঘোষণা দিয়েছে দেশটির সরকার।
গত বুধবার চীনের স্টেট কাউন্সিল বা মন্ত্রিসভার বৈঠকে বেশ কিছু পরিকল্পনার অনুমতি দেয়া হযেছে। এ বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন চীনা স্টেট কাউন্সিলের প্রধান লি কেকিয়াং।
চীনের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান থেকে দেখা যায়, ২০১৯ সালে দেশটির মোট খুচরাপণ্য বিক্রিতে ২৫ শতাংশ অবদান নেখেছে অটোমোবাইল, গৃহস্থালি পণ্য, আসবাবপত্র, নির্মাণসামগ্রী ও পরিবেশন খাত। চীনের মোট খুচরাপণ্য বিক্রিতে গ্রামাঞ্চলে বিক্রির অবদান আরও কম, ১৪ দশমিক ৭ শতাংশ মাত্র।
মহামারির কারণে বছরের মাঝামাঝি এসে চীনে মোট খুচরাপণ্য বিক্রি কিছুটা কমলেও শেষের দিকে আবারও তা বাড়তে শুরু করেছে। গত বছরের তুলনায় এবারের অক্টোবরে দেশটিতে মোট খুচরাপণ্য বিক্রি বেড়েছে ৪ দশমিক ৩ শতাংশ।
বুধবারের বৈঠকে চীনে অভ্যন্তরীণ চাহিদা বৃদ্ধির এই ধারা আরও গতিশীল করতে বেশ কিছু কৌশলগত পরিকল্পনার অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এতে স্থানীয় কর্তৃপক্ষগুলোকে ক্রয় সংক্রান্ত বিধিনিষেধ শিথিল করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।
নতুন পরিকল্পনায় চীনের গ্রামাঞ্চলে গাড়ি কিনতে ক্রেতাদের উৎসাহিত করা হবে এবং পুরনো গাড়ি বদলে নেয়ারও সুযোগ দেয়া হবে। বিভিন্ন স্থানে পার্কিং লট এবং চার্জিং পাইল (ইলেক্ট্রিক গাড়ি চার্জ দেয়ার জায়গা) নির্মাণ বাড়ানো হবে।
যেসব অঞ্চলে অনুমতি রয়েছে, সেখানে পুরোনো স্থাপনাগুলোর জন্য গ্রিন স্মার্ট প্রযুক্তি এবং পরিবেশবান্ধব আসবাবপত্র কেনায় ভর্তুকির ব্যবস্থা করা হবে।
পরিবেশন খাতে সেবাদাতাদের মেন্যু উন্নত করা বা এতে বৈচিত্র্য আনতে উৎসাহিত করা হবে। পাশাপাশি, সেবার মানও বাড়ানো হবে।
চীনের বিভিন্ন কাউন্টি, গ্রাম ও উপ-শহরগুলোতে ব্যবসায়িক স্থাপনা নির্মাণে আরও গতি আনার উদ্যোগ নিয়েছে দেশটির সরকার।
স্থানীয় বাজারগুলোতে ভুয়া বা নিম্নমানের পণ্যের প্রবেশ ঠেকাতে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ারও ঘোষণা দিয়েছে তারা।
তবে এসব পদক্ষেপের মধ্যে কিছুটা বেশি গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে ইন্টারনেট প্লাস ট্যুরিজমে। দেশটির পর্যটনকেন্দ্রগুলোতে ইলেকট্রনিক মানচিত্র, অডিও গাইডের মতো অত্যাধুনিক সেবা চালুর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। জনপ্রিয় পর্যটনকেন্দ্রগুলোতে ডিজিটাল এক্সিবিশন ভেন্যু তৈরিতেও উৎসাহিত করছে চীন সরকার।
লি কেকিয়াং বলেন, ইন্টারনেট প্লাস ট্যুরিজমের মডেলটি ভোক্তা চাহিদা বৃদ্ধিতে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে। কার্যকর প্রমাণিত ব্যবস্থাগুলোর প্রসার ঘটানো হবে। তবে দূরদর্শী নিয়মকানুন বাড়ানোর পাশাপাশি জোচ্চুরি-প্রতারণাও প্রতিরোধ করতে হবে। সূত্র: শিনহুয়া






সম্পাদক : জয়নাল হাজারী।  ফোন : ০২-৯১২২৬৪৯
মোঃ ইব্রাহিম পাটোয়ারী কর্তৃক ফ্যাট নং- এস-১, জেএমসি টাওয়ার, বাড়ি নং-১৮, রোড নং-১৩ (নতুন), সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
এবং সিটি প্রেস, ইত্তেফাক ভবন, ১/আর কে মিশন রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত।
আবু রায়হান (বার্তা সম্পাদক) মোবাইল : ০১৯৬০৪৯৫৯৭০ মোবাইল : ০১৯২৮-১৯১২৯১। মো: জসিম উদ্দিন (চীফ রিপোর্টার) মোবাইল : ০১৭২৪১২৭৫১৬।
বার্তা বিভাগ: ৯১২২৪৬৯, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ০১৯৭৬৭০৯৯৭০ ই-মেইল : [email protected], Web : www.hazarikapratidin.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি