সোমবার, ০৮ মার্চ, 2০২1
পুলিশের চোখে মরিচের গুড়া ছিটিয়ে স্বামীকে ছিনিয়ে নিলেন স্ত্রী
Published : Monday, 22 February, 2021 at 7:44 PM

জেলা প্রতিনিধি ॥
পটুয়াখালী জেলার গলাচিপা উপজেলায় পুলিশের চোখে মরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে ওয়ারেন্টভুক্ত স্বামীকে ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে এক স্ত্রীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ওই গৃহবধূকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
গত শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে উপজেলার চরকাজল ইউনিয়নের বড়শিবা গ্রামের পরোয়ানাভুক্ত আসামি কাশেম বেপারীকে (৪৫) গ্রেপ্তার করতে গেলে এ ঘটনা ঘটে। এতে পুলিশের তিন সদস্য আহত হয়েছেন বলেও জানা গেছে।  এ ঘটনায় গলাচিপা থানার সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মো. সুমন হাওলাদার বাদী হয়ে কাশেম বেপারীর স্ত্রী হাসিনা বেগমসহ ১০ জনের নাম উল্লেখ এবং ৯ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে মামলা করেন। গলাচিপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমআর শওকত আনোয়ার ইসলাম বলেন, ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার একটি মামলার পরোয়ানাভুক্ত পলাতক আসামি কাশেম বেপারী। গলাচিপার চরকাজল ইউনিয়নের বড়শিবা গ্রামে অবস্থান নেন তিনি। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার বিকেলে কাশেম বেপারীকে গ্রেপ্তার করতে যায় পুলিশ। এ সময় কাশেমের বাড়ির নারী-পুরুষের চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসেন। এরই মধ্যে কাশেমের স্ত্রী হাসিনা বেগম পুলিশের তিন সদস্যের চোখে মরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে দেন। এ সুযোগে ১০-১২ জন মিলে পুলিশ সদস্যদের পিটিয়ে আহত করে আসামি ছিনিয়ে নেন। ওসি শওকত আনোয়ার ইসলাম বলেন, কাশেম বেপারীসহ বেশ কয়েকজন পুলিশদের মারধর করেছেন। আহত পুলিশ সদস্যদের গলাচিপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় কাশেম বেপারীর স্ত্রীকে গ্রেপ্তার করে রোববার কারাগারে পাঠানো হয়েছে। পলাতক কাশেমকেও গ্রেপ্তারে কাজ করছে পুলিশের একাধিক টিম।


সম্পাদক : জয়নাল হাজারী।  ফোন : ০২-৯১২২৬৪৯
মোঃ ইব্রাহিম পাটোয়ারী কর্তৃক ফ্যাট নং- এস-১, জেএমসি টাওয়ার, বাড়ি নং-১৮, রোড নং-১৩ (নতুন), সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
এবং সিটি প্রেস, ইত্তেফাক ভবন, ১/আর কে মিশন রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত।
আবু রায়হান (বার্তা সম্পাদক) মোবাইল : ০১৯৬০৪৯৫৯৭০ মোবাইল : ০১৯২৮-১৯১২৯১। মো: জসিম উদ্দিন (চীফ রিপোর্টার) মোবাইল : ০১৭২৪১২৭৫১৬।
বার্তা বিভাগ: ৯১২২৪৬৯, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ০১৯৭৬৭০৯৯৭০ ই-মেইল : [email protected], Web : www.hazarikapratidin.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি